20 June 2015

Pre-Islamic Arabia

Pre-Islamic Arabia
A general overview of Pre Islamic Arabia till up to 525 AD. It is by no means to undermine any one with philosophy or views. this write up and the compilation of the facts and figures and the anthropological evidence will give an insight as to what was the demography, culture and mixture of the society that exited in that area which to many of my readers have not had the time to research and or see the evidence of the existence of these spectrum of civilisations since the time history have been recorded. 

The world was sufficiently advanced by then - the Roman Empire ( roman chapter ) came ruled and gone and perished ; the Eastern Roman Empire still functioned from Constantinople and there exited a very modern Perisan civilisation next door flourished simultaneously during these period.
Pre-Islamic Arabia refers to the Arabic civilization which existed in the Arabian Plate before the rise of Islam in the 630s. The study of Pre-Islamic Arabia is important to Islamic studies as it provides the context for the development of Islam.
The scientific studies of Pre-Islamic.Arabs starts with the Arabists of the
early 19th century when they managed.to decipher epigraphic Old South.Arabian (10th century BCE), Ancient.North Arabian (6th century BCE) and other writings of pre-Islamic Arabia, so it is no longer limited to the written traditions which are not local due to the lack of surviving Arab historians accounts of that era, so it is compensated by existing material consists primarily of written sources from other traditions (such as Egyptians, Greeks, Romans, etc.) so it was not known in great detail; From the 3rd century CE, Arabian history becomes more tangible with the rise of the Himyarite Kingdom, and with the appearance of the Qahtanites in the Levant and the gradual assimilation of the Nabataeans by the Qahtanites in the early centuries CE, a pattern of expansion exceeded in the explosive Muslim conquests of the 7th century. So sources of history includes archaeological evidence, foreign accounts and oral traditions later recorded by Islamic scholars especially pre-Islamic poems and al-hadith plus a number of ancient Arab documents that survived to the medieval times and portions of them were cited or recorded. Archaeological exploration in the Arabian Peninsula has been sparse but fruitful, many ancient sites were identified by modern excavations.
Pre-Historic to Iron Age

Ubaid period (5300 BCE)-could have originated in eastern Arabia-.
Umm an-Nar Culture (2600-2000 BCE)
Sabr culture (2000 BCE)
Magan and 'ad
Further information: ʿĀd and Majan (Civilization)
• Magan is attested as the name of a trading partner of the Sumerians. It is often assumed to be located in Oman.
• The A'adids established themselves in South Arabia (modern-day Yemen), settling to the east of the Qahtan tribe.
They established the Kingdom of ʿĀd around the 10th century BCE to the 3rd century CE.
Nabataean trade routes in Pre-Islamic Arabia

Pre-Islamic Arabia
The ʿĀd nation were known to the Greeks and Egyptians. Claudius Ptolemy's Geographos (2nd century CE) refers to the place by a Hellenized version of the inhabitants of the capital Ubar.
The Thamud (Arabic: ثمود) were a people of ancient Arabia, either a tribe or a group of tribes, that created a large kingdom and flourished from 3000 BCE to 200 BCE. Recent archaeological work has revealed numerous Thamudic rock writings and pictures not only in Yemen but also throughout central Arabia.
They are mentioned in sources such as the Qur'an, old Arabian poetry, Assyrian annals (Tamudi), in a Greek temple inscription from the northwest Hejaz of 169 CE, in a 5th-century Byzantine source and in Old North Arabian graffiti around Tayma.
They are mentioned in the victory annals of the Neo-Assyrian King,
Sargon II (8th century BCE), who defeated these people in a campaign in northern Arabia. The Greeks also refer to these people as "Tamudaei", i.e. "Thamud", in the writings of Aristo, Ptolemy, and Pliny. Before the rise of Islam, approximately between 400-600 CE, the Thamud totally disappeared.
South Arabian Kingdoms
Kingdom of Ma'in (7th century BCE – 1st century BCE)
During Minaean rule the capital was at Karna (now known as Sa'dah). Their other important city was Yathill (now known as Baraqish). The Minaean Kingdom was centered in northwestern Yemen, with most of its cities laying along the Wadi Madhab. Minaean inscriptions have been found far afield of the Kingdom of Ma'in, as far away as al-`Ula in northwestern Saudi Arabia and even on the island of Delos and in Egypt. It was the first of the Yemeni kingdoms to end, and the Minaean language died around 100 CE .[1]
Kingdom of Saba (9th century BCE – 275 CE)
During Sabaean rule, trade and agriculture flourished generating much wealth and prosperity. The Sabaean kingdom is located in what is now the Asir region in southwestern Yemen, and its capital, Ma'rib, is located near what is now Yemen's modern capital, Sana'a.[2] According to South Arabian tradition, the eldest son of Noah, Shem, founded the city of Ma'rib.
During Sabaean rule, Yemen was called "Arabia Felix" by the Romans
who were impressed by its wealth and prosperity. The Roman emperor
Augustus sent a military expedition to conquer the "Arabia Felix", under the orders of Aelius Gallus. After an unsuccessful siege of
Picture of Thamudi tombs at Mada'in Saleh carved from mountain
Sabaean inscription addressed to the moon-god Almaqah, mentioning five South Arabian gods, two reigning sovereigns and two governors, 7th century BCE.

Pre-Islamic Arabia
A Griffin from the royal palace at Shabwa, the capital city of Hadhramaut.
Ma'rib, the Roman general retreated to Egypt, while his fleet destroyed the port of Aden in order to guarantee the Roman merchant route to India.
The success of the kingdom was based on the cultivation and trade of spices and aromatics including frankincense and myrrh. These were exported to the Mediterranean, India, and Abyssinia where they were greatly prized by many cultures, using camels on routes through Arabia, and to India by sea.
During the 8th and 7th century BCE, there was a close contact of cultures between the Kingdom of Dʿmt in northern Ethiopia and Eritrea and Saba. Though the civilization was indigenous and the royal inscriptions were written in a sort of proto-Ethiosemitic, there were also some Sabaean immigrants in the kingdom as evidenced by a few of the Dʿmt inscriptions.[3] [4]
Agriculture in Yemen thrived during this time due to an advanced
irrigation system which consisted of large water tunnels in mountains, and dams. The most impressive of these earthworks, known as the Marib Dam was built ca. 700 BCE, provided irrigation for about 25000 acres (101 km2) of land[5] and stood for over a millennium, finally collapsing in 570 CE after centuries of neglect.
Kingdom of Hadhramaut (8th century BCE – 3rd century CE)
The first known inscriptions of Hadramaut are known from the 8th century BCE. It was first referenced by an outside civilization in an Old Sabaic inscription of Karab'il Watar from the early 7th century BCE, in which the King of Hadramaut, Yada`'il, is mentioned as being one of his allies. When the Minaeans took control of the caravan routes in the 4th century BCE, however, Hadramaut became one of its confederates, probably because of commercial interests. It later became independent and was invaded by the growing Yemeni kingdom of Himyar toward the end of the 1st century BCE, but it was able to repel the attack. Hadramaut annexed Qataban in the second half of the 2nd century CE, reaching its greatest size. The kingdom of Hadramaut was eventually conquered by the Himyarite king Shammar Yahri'sh around 300 CE, unifying all of the South Arabian kingdoms.[6]
Kingdom of Awsan (8th century BCE – 6th century BCE)
The ancient Kingdom of Awsan in South Arabia (modern Yemen), with a capital at Hagar Yahirr in the wadi Markha, to the south of the wadi Bayhan, is now marked by a tell or artificial mound, which is locally named Hagar Asfal.
Kingdom of Qataban (4th century BCE – 3rd century CE)
Qataban was one of the ancient Yemeni kingdoms which thrived in the Beihan valley. Like the other Southern Arabian kingdoms it gained great wealth from the trade of frankincense and myrrh incense which were burned at altars. The capital of Qataban was named Timna and was located on the trade route which passed through the other kingdoms of Hadramaut, Saba and Ma'in. The chief deity of the Qatabanians was Amm, or "Uncle" and the people called themselves the "children of Amm".

Pre-Islamic Arabia
Kingdom of Himyar (2nd century BCE – 525 CE)
The Himyarites rebelled against Qataban and eventually united Southwestern Arabia, controlling the Red Sea as well as the coasts of the Gulf of Aden. From their capital city, Zafar (Thifar), the Himyarite Kings launched successful military campaigns, and had stretched its domain at times as far east to the Persian Gulf and as far north to the Arabian Desert.
During the 3rd century CE, the South Arabian kingdoms were in continuous conflict with one another. Gadarat (GDRT) of Axum began to interfere in South Arabian affairs, signing an alliance with Saba, and a Himyarite text notes that Hadramaut and Qataban were also all allied against the kingdom. As a result of this, the Aksumite Empire was able to capture the Himyarite capital of Thifar in the first quarter of the 3rd century. However, the alliances did not last, and Sha`ir Awtar of Saba unexpectedly turned on Hadramaut, allying again with Aksum and taking its capital in 225. Himyar then allied with Saba and invaded the newly taken Aksumite territories, retaking Thifar, which had been under the control of Gadarat's son Beygat, and pushing Aksum back into the Tihama.[7] [8]
Aksumite occupation of Yemen (525 – 570 CE)

The Aksumite intervention is connected with Dhu Nuwas, a Himyarite king who changed the state religion to Judaism and began to persecute the Christians in Yemen. Outraged, Kaleb, the Christian King of Aksum with the encouragement of the Byzantine Emperor Justin I invaded and annexed Yemen. The Aksumites controlled Himyar and attempted to invade Mecca in the year 570 CE, Eastern Yemen remained allied to the Sassanids via tribal alliances with the Lakhmids, which later brought the Sassanid army into Yemen ending the Aksumite period.
conclusion ;
the world has come a long way away - the modern science and chronological relief map of human expeditions and conquests since the dawn of history has been unearthed slowly and gradually and there that killed a lot of myth and unexplained prolong period of missing links for the present generation to know and study.
History can also refer to the academic discipline which uses a narrative to examine and analyse a sequence of past events, and objectively determine the patterns of cause and effect that determine them
"All history is contemporary history". History is facilitated by the formation of a 'true discourse of past' through the production of narrative and analysis of past events relating to the human race. The modern discipline of history is dedicated to the institutional production of this discourse.

The line of demarcation between prehistoric and historical times is crossed when people cease to live only in the present, and become consciously interested both in their past and in their future. History begins with the handing down of tradition; and tradition means the carrying of the habits and lessons of the past into the future. Records of the past begin to be kept for the benefit of future generations.
(credit : collected and with my personal input )

19 June 2015


সতত, হে নদ, তুমি পড় মোর মনে |

সতত তোমার কথা ভাবি এ বিরলে ;
সতত ( যেমতি লোক নিশার স্বপনে
শোনে মায়া-যন্ত্রধ্বনি ) তব কলকলে
জুড়াই এ কান আমি ভ্রান্তির ছলনে!--
বহু দেশে দেখিয়াছি বহু নদ-দলে,
কিন্তু এ স্নেহের তৃষ্ণা মিটে কার জলে?
দুগ্ধ-স্রোতোরূপী তুমি জন্ম-ভূমি-স্তনে!
আর কি হে হবে দেখা?--যত দিন যাবে,
প্রজারূপে রাজরূপ সাগরেরে দিতে
বারি-রূপ কর তুমি ; এ মিনতি, গাবে
বঙ্গজ-জনের কানে, সখে, সখা-রীতে
নাম তার, এ প্রবাসে মজি প্রেম-ভাবে
লইছে যে তব নাম বঙ্গের সঙ্গীতে! 

18 June 2015

এস্পীয়নাজ ডেট লাইন ঢাকা - ঢাকা - মালটা - অজানা গন্তব্য;

এস্পীয়নাজ ডেট লাইন ঢাকা - ঢাকা  - মালটা - অজানা গন্তব্য;

স্টিম বাথ রুমের পাশে দাড়িয়ে ছিল বক্সের অপেক্ষায় সুসান ; মৃদু পায়ে ধীর গতিতে এগিয়ে আসলো মিস কোয়েন এর  কাছে ; চারদিকে চোখ ,সজাগ দৃষ্টি ; আলো আধারির সন্নিবেশিত স্টিম - গরম বাস্প নিগৃহীত হচ্ছে দরজা দিয়ে; কানে কানে জিগ্গেস করলো খোদা বক্স - কেন এত গোপনে দেখা? উত্তরে কোনো কিছু না বলেই দুজনায় ঢুকে গেল স্টিম  রুমে।

বললো স্বল্প আওয়াজে ; আমার চাই রাশিয়ান অস্ত্র পাচার কারীদের নাম এবং ওদের মদ্ধপ্রাচিও টেরর গ্রুপদের বিশদ বিবরণ - বিনিময়ে পাবে , এক মিলিয়ন পাউন্ড - করাচির তোমার হাবিব জুরিখ ব্যাংকার একাউন্ট এ কাল সকালে পেয়ে যাবে ; ওসমান খালিদ যেন কিছু না জানে।  পাকিস্তানি মহিলা দের প্রতি লালসা ও স্নিগ্ধ উষ্ণ সাহচর্য - অপূর্ব এই সুন্দরীর উদ্দাত্ত একপ্রকার আহ্বান খোদা বক্সের মাথার বাক্সটা খারাপ হবার উপায় ; কিছুক্ষণ ভেবে বলল - এক মিলিয়ন পাউন্ড আর সাথে চাই ব্রিটিশ ভিসা ; আমি বাকি জীবন ব্রিটেনেই কাটাতে চাই- এটাই আমার জীবনের শেষ কাজ; এই বিবাগী জবনের অবসান টানতে চাই - কেন উ হেল্প মি?

ভুরু কুচকে অল্পক্ষণ ভাবলো সুসান , কানে কানে বললো ; ফাইন উইল ডু ইট  টু বাট  ই নিড অল ডিটেল্স - কাল সকালের আগে, বক্স বললো , কেন আই ট্রাস্ট অসমান ? সুসান মাথা নেড়ে হা বোধক সম্মতি দিল;

খোদা বক্স এক বারো ভাবলো না ; কথায় সুসান পেল ওর ব্যাঙ্ক একাউন্ট ? বোকা - মহিলার গন্ধে বিভোর এস এস জি অপারেটিভ ; যা নাকি এক মাত্র সম্ভব পাকিস্তানি পুরুষের দ্বারা।  যৌন তৃপ্তি এই সকল অর্ধেক সভ্য পাকিস্তানীদেরকে একমাত্র শোভা পায় ; একাত্তুরে ওদের পূর্ব পুরুষেরাও একই জঘন্য নারকীয় বলত্কারের তান্ডব চালিয়েছিল নিরীহ বাঙালিদের উপর।

নাত্সী যেমন গৃনিত  ইহুদিদের কাছে ; ঠিক তেমনি  পাকিস্তানিরা বাঙালিদের কাছে।

 মুচকি হেসে সুসান বলল -  সব ডিটেলস সহ সব কাগজ যেন কাল সকালের আগেই সুসানের নিকট পৌছে যায়; টাকা এবং ভিসা ব্যবস্থা হবে সাথে সাথে ; যেই কথা সেই  কাজ।  একটা জগত মোহনী হাসি দিয়ে বাই বলে বিদায় নিল সুসান।

চল্লিশ বসর বয়সী খোদা বক্স অনেকক্ষণ সেই উষ্ণ ভিজা স্টিম রুমের বেঞ্চে  শুয়ে থাকলো আর স্বপ্নে বিভোর হয়ে গেল সুসানের মোহে আর টাকার প্রাচুর্যের সম্ভাবনায়।

হূ গিভস এ ডেম - মরুক ঐ সব মুসলিম নামক পশু গুলো - সব নাম, ঠিকানা ও অন্যান্য সব দিয়ে দিব সুসান কে ; আর এর পর টাকা গুলো হাতে আসা মাত্রই গায়েব হয়ে যাব চিরতরে ; খুঁজে আর কেই পাবে না আমাকে।

কিন্তু, কি চায় এই বুড্ডা  অসমান মিয়া ? ভেবে পেল না কোনো সুরাহা ; সকালে আবার দেখা হবে - নানা প্রশ্নের মাঝে হারিয়ে ওই বেঞ্চেই চোখ বুজে এক ঘুম মারলো খোদা বক্স।

শিকারী যেমন তার শিকার কে চিনতে ভুল করে না ঠিক তেমনি খোদা বক্স মনে মনে সুসান কে তার পরবর্তী শিকার ভেবে গদগদ - ও জানে কিভাবে সুসান কে সে গায়েল করবে এবং তার ইচ্ছা চরিতার্থ করবে; ঘুনাক্ষরেও ভাবলো না নে কে এই সুসান ? কি ওর  কাভার , কেন তার চাই মিডেল ইস্ট টেরর গ্রুপদের খবর, এজেন্টের নাম, রাশিয়ার সরবরাহকারীর সকল পাত্তা? নাহ, কোনো সন্দেহ এর কোনো অবকাশ নাই ওর মোটা  মাথায় এই মুহুর্তে, ওর দরকার টাকা এবং এই অপূর্ব সুসানের সান্নিধ।সাহচর্জ এবং তৃপ্তি ও লালসা।
সুসান ইতিম ধ্যে জেরুলামকে জানিয়ে দিয়েছে খোদা বক্সের সাথে তার আলোচনার কথা- আই ফোনের ইনস্ট্যান্ট মেসেজ কে এনক্রিপ্ট করে - উত্তর ও এসে গেছে '' গো এহেড '' - মোসাদের নিকট এই মিডেল ইস্ট টেরর  গ্রুপদের নেটওয়ার্ক তসনস করে দেয়া অতন্ত প্রয়োজন ওদের নিজেদের শান্তিতে বেছে থাকার নিমিত্তে; এস্পীয়নাজের জন্য এই অস্ত্র সাপ্লাই নেটওয়ার্ক কে ইটা এক বিরাট চ্যালেঞ্জ।  কিন্তু ওরা কি ভাবে খোদা বক্স কে ডিল করবে এবং কেন ওসমান খালিদ এই কাবাবে হাড্ডি হলো এটাই ভেবে পাচ্ছে না সুসান।

ওসমান  কার লোক - চায়  সে খোদা বক্সের কাছে ? ওসমান খালিদ চায় না বাংলাদেশ কোনো ভাবেই উন্নতি করুক; সে চায় বাংলাদেশ কে পুনরায় পূর্ব পাকিস্তান বানাতে; ভারতীয় দের চলে পরে বেয়াকুফ বাঙাল আদমী ওর পবিত্র পাকিস্তান টাকে ভেঙ্গে চুরমার করে দিয়েছে - মোহাম্মদ আলী জিন্নার থেকেও যেন খালিদের পাকিস্তান প্রীতি অনেক প্রকট।

ওসমান শুনেছে এই দুর্ধর্ষ খোদা বক্সের কথা - ও এও জানে; - ইকবাল খান - খোদা বক্সের পিতা এক সময় ওসমানের পল্টনের হাবিলদার মেজর ছিল যখন ওসমান  ওই পল্টনের টু  আই  সি।

লিবিয়াতে খোদা বক্স অনেক বার প্রকাশ করেছে তার বাংলাদেশে মিসন এ যাওয়ার ইচ্ছা - বিভিন্ন দেশ  ভিত্তিক মুসলিম গ্রুপদের নেতাদের এবং ওদের বাংলাদেশি অংশ এর উপর নজর অনেক দিনের কিন্তু দুই এ দুই চার এক জায়গায় করা যাচ্ছে না অনেক দিন যাবত।

এস্পীয়নাজ এক বিশাল অজানা অচেনা জনপদ - যেখানে সবাই হাটা চলা করে কেই কাউকে চিনে না কিন্তু সবার অজান্তে সবাই ''জহুরী যেমন পাথরের মাঝ থেকে হীরা খুঁজে নেয়'' - ঠিক তেমনি কানেক্সন খুঁজে পাওয়ার জন্য ওরাও জুহুরির  চেয়ে কোনো অংশে কম না।

ওসমান এক পাকিস্তান , খোদা বক্স বাবার প্রতিশোধ , সুসানা টেরর গ্রুপ উতপাটন , বাংলাদেশী গিনিপিগ এবং কিভাবে বাংলাদেশকে আবার তলাবিহীন বাস্কেটে রুপান্তরিত করার  অপপ্রয়াস, লাস্টলি খোদা বক্সের মাধ্যমে - ওসমান খালিদের ডাবল ক্রস  প্রণালীতে খুঁজে  বের করা যায় কারা এই খেলার প্রধান খেলারি এবং কোথায়  এর শিকর।

অনেক প্রশ্নের মাঝে  হারিয়ে গেল রাতুল - ইস্কাটনের পুরনো ফ্রেঞ্চ এম্বাসির দেয়াল ঘেষে রেঞ্জ রোভার স্টার্ট করছিলো নাতাসা - পাশে আসতেই দরজাটা খুলে ধরলো।  গাড়িতে উঠেই - একটা মিষ্টি হাসি আর বাম গালে চুমু দেয়ার সাথে সাথেই গাড়ী চলতে শুরু করলো এক অজানা গন্তব্যের উদ্দেশে।..................... নাতাশা আই  ফোনের জি পি আর এস এ দেখালো মসুরির দলের মত আকারের সেই চিপ যা মাল্টাতে অনুপ্রবেশ করানো হয়েছিল খোদা বক্সের বাহুতে সেই ছিপটা এখনও প্রজ্জলিত ঢাকা মেডিকেলের মর্গের  ভিতর মহল তবিয়তে সিগনাল দিচ্ছে গুগলের ঢাকা শহরের ম্যাপ এ। ...এক ঝলক বঙ্কিম হাস্সো রেখা ভেসে উঠলো রাতুলের ঠোটে। ................


(গল্পের সকল চরিত্র কাল্পনিক- মিল যদি হয় তা হলে একেবারেই কাকতালীয় )

14 June 2015

ইসলামিক টেররিসম এর বিরুদ্ধে একাকী এক যোদ্ধা - A LONE FIGHTER AGAISNT THE ISLAMIC TERRORISM

ইসলামিক টেররিসম এর বিরুদ্ধে একাকী এক যোদ্ধা 

হলি ফ্যামিলি হাসপাতালের তিন তলার বাহাত্তুর নম্বর কেবিনে নিস্তব্ধ নিশ্চুপ আধারে ঘুম ভাঙ্গলো রাতুলের ; উঠতে যেয়ে উপলব্ধি করলো অর সারা বুকে ও পিঠে বেন্ডেজ ; হাতের মমুষ্ঠিতে পাচ ছয়টা সুই ঢুকানো, কেমন করে সে এল এইখানে ?

তিন দিন ধরে প্রাণ পন চেষ্টা করেও কুপোকাত ধরাশাহী করতে পারতে পারতে ও পারলনা ওই নিসংশ পশু টাকে ; ধানমন্ডি - সেই পনের নম্বরের পুরান অর্কেওলোজি সাইট থেকে এক বিশাল আকৃতির ৬ ফুট ৮ ইঞ্চি লম্বা মানুষটাকে; নাম তার - খোদা বক্স ; এক পাকিস্তানি সিক্রেট সার্ভিস এজেন্ট- কারাটে - জুডো - মার্শাল আর্ট এবং সারভাইভাল এক্সপার্ট ; পাক আর্মির এক এস এস জি অপারেটিভ ;

বাংলাদেশ কে পুনরায় পাকিস্তানি মন ভাবাপন্ন করে তোলা এবং আত্মঘাতী বিভিন্ন অভিযান চালিয়ে তা অনান্য বিভিন্ন মতাবিলোম্বী দলের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে দেয়াই এবং কন্ফুসিওন  সৃষ্টি আর কাজ;
তার সহযোগীদের অভাব নাই ; রামপুরা; মোহাম্মদপুর; কলতা বাজার এর গোপন আস্থানা ; আজ প্রায় তিন মাস যাবত মায়ানমার হয়ে - টেকনাফ দিয়ে রাবেতা ইসলাম ও অন্যান্য সহযোগী সংস্থার সাহায্যে এর অনুপ্রবেশ ;

উপর্জোপরি কয়েকটি নাশকতা মূলক কাজ সে ইতিমধ্যে করে ফেলেছেও ; রাতের আধারে পরচুলা চুল আর দাড়ি লাগিয়ে সে বিভিন্ন মখ্তব এবং মসজিদেও উর্দু; আরবি ; ফার্সি তে হাদিস এবং ধর্ম ও ধর্মের বিপদজনক অবস্থার নাকি বক্তৃতাও দিয়েছে ;  এবং তার নুরানী চেহারা - এবং ভাষায় পারদর্শিতায় মুদ্ধ যুবক সমাজ; জীবন  যেখানে আশাহীন , নিরাশা, শিক্ষা যেখানে অশিক্ষায় নিমিজ্জিত, অভাব আর মডার্ন জীবন যাপন করতেই যান ওষ্ঠাগত ; তখন এই সব স্বপ্নিল স্বপ্ন, বিচ্ছিদ্র অপরূপ ভবিষৎ এর রপরেখা ও এ ডভেঞ্চার মোহের মত আকৃস্ট করে এই যুবকদের।

রাতুল ; ২৫ বছরের এক যুবক; সদ্য একটা পেশা থেকে সরে এসে  ; খুলেছে তার স্বপ্নের বাসনা ; একটি প্রাইভেট ইনভেস্টিগেশন ব্যবসা।

পৈত্রিক অনেক অকেজো জমি বিক্রি করে সে ইস্রায়েল- জার্মানি  এবং আমেরিকাতে ট্রেনিং নিয়ে এসে খুলেছে
 এই প্রাইভেট কোম্পানি ; বেশ কয়েক তা মাল্টি নেশনাল কোম্পানি তার ক্লায়েন্ট ; ব্যবসা রম রমা ; বারিধারায় তার ছোট অফিস আর আছে তার  কোম্পানির সার্ভিলেন্স কর্পোরেট হেড কোয়াটার  ; নাম না জানা এক অজ্ঞাত স্থানে ;  তার ব্যবসার অপর পার্টনার তার ইহুদি - মুসলিম- ফ্রেঞ্চ ও পালেস্তিনে  বংসৌদ্বুদ্ধ গার্লফ্রেন্ড নাতাশা ইয়াসমিন কাপালানস্কি।

এই প্রথম আন্তর্জাতিক কাজ; তা  ও আবার ; এস্পীয়নাজ, টেররিস্ট সম্পর্কিত ; মালটা থেকে রাতুলের বন্ধু ফিল ; ফিল কেবল ইমেইল এ এই নতুন এসায়ন্মেন্ট দিয়েছে,  টার্গেট কে যে ভাবেই পারো  NUTRALIZE  করেত হবে ; প্রায় ১৫০ হাজার ডলারের কন্ট্রাক্ট ;

রাতুলের মনে পড়ল তার নানার মুখে শোনা সে লোমহর্ষক দিন গুলোর কথা;  ধীরে ধীরে তার মুখের হার গুলো পেশির ক্ষিপ্রতায় শক্ত হতে শুরু করলো; হাসপাতালে ঘুমিয়ে সময় কাটানো এক জন মোসাদ এবং সীল প্রশিক্ষিত অপেরাটিভের জন্য নয়.........

আস্তে করে সুই গুলো একে একে বের করলো রাতুল অন্নিরুদ্ধ ;শার্প একটা বেথা অনুভূত হলো অর পাজরে ; হোটেল সোনার গা'র নয়্ তোলা লিফট সেফ্ট আর ভিতর পরাজিত খোদা বক্স ' পাকিস্তানি আর্মির পর্ক্রামশালী অপারেটিভ এস এস জির গ্যারিসন সার্জেন্ট মেজর খোদা  বক্স খান  হিলাল ই ইমতিয়াজ, ১৯৯৯ এ চাকরি শেষ করে সৌদি আরাবিয়ার উদ্দেশে পারি জমায় এই পাষণ্ড নর ঘাতক - পর্যায় ক্রমে ; ড্রাগ, মহিলা পাচার, জনবল পাচার অস্ত্র বিক্রয়  , থেকে শুরু করে সকল ধরনের কাজেই  ওর জুরি নাই। শেষ পর্যন্ত- তার বাবার মরন্স্তল ওকে ধর্ম ব্যবসার প্রলোভনে এনে হাজির কর লো সেই ঢাকায় ; ১৯৭১ সালে অর পিতা ১৪ ডিভিসনের হেড কোয়াটার  এর   জেকিউএম  ইকবাল বক্স খানের পরিসমাপ্তিও হয়েছিল এই ঢাকাতেই ;

নয় তালা থেকে লাফ মেরে নামতে গিয়ে পাজরের তিন হাড়ে বেথা পেয়ে ধরাশাহী হয়ে পরে রাতুল; হোটেলের কর্মচারীরা গেস্ট মনে করে পাশেই হলিফামিলি হসপাতালে ভর্তি করিয়ে দেয়।

ব্রিগেডিয়ার ওসমান খালিদের সাথে খোদা বক্স বসে চা পান করছিল  মাল্টার সেই প্রসিদ্ধ পাচ তারকা হোটেল গ্র্যান্ড হোটেলের লবিতে। ভুট্টোর খাস পেয়ারের বান্দা ওসমান খালিদ - দুর্দান্ত বুদ্ধিমান ,চতুর অফিসার এই ওসমান খালিদ ;পাকিস্তান অক্ষুন্ন রাখাকে মনে করে ওর একটা জন্মগত দায়িত্ব।  তুর্কি তে এক সময় পাকিস্তানের সামরিক এটাচে  ছিল; পাকিস্তানের আনবিক বোমার সরজ্ঞাম যোগার করার পেছনে ওর  অনেক অবদান - খোদা বক্স  জানত অনেক কিছু; কিন্তু কখনই জানত না যে খালিদ আজ কাল এম আই ফাইভ এর একজন ডাবলক্রস ; অঢেল পয়সা, প্রেসিডেনশিয়াল সুইটে তার বিশাল সি ভিউ রুম, সাথে অপূর্ব সুন্দরী পাটের আশের মত ব্লন্ড চুল ওলা সুন্দরী পি এ সুসান কোয়েন।  অনর্গল ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ ,হিব্রু, এরাবিক ভাষায় কথা বলতে পারদর্শি  কে- সত্তর উত্তর খালেদের পি এ থেকে - রাতের সজ্জা সঙ্গিনী মনে হয় বেশি; কামনা যৌবন,নিতম্ব,উন্নাসিক উগ্র বক্ষদুগল উপচে পরে যাচ্ছে যেন বক্ষ বন্ধনীর তৃতীয় বন্ধনী থেকে ; এক বিশাল নেটওয়ার্ক এর মারপেচ এ হবু ডুবু খাচ্ছে ওরা তিন জনই ; কে কার দলের কার কি পরিচয়? কে কার বন্ধু, কে কাকে কত টুকু বিশ্বাস করতে পারে? এটাই গ্র্যান্ড হোটেলের লবির সোফায় তিন জনকেই ত্রিভুজের তিন বাহুর মত ভাবিয়ে তুলছে।

হাতে হোটেলের রুমের ক্রেডিট কার্ডের মত চাবি, নতুন পাসপোর্ট লিবিয়ান , ক্রেডিট কার্ড, নগদ এক এনভেলপ ভর্তি ডলার এবং পাউন্ড নোট - বিরতি মিটিং এর সকাল ১১ টায় আবার দেখা হবে মাস্ট ইন্টার নেসনালের অফিস এ - মেরি টাইম  অ্যাসেট এন্ড সিকিউরিটি ইন্টারন্যাশনাল ;

বিছানায় সটান হয়ে শুয়ে শুয়ে ঘুম প্রায়  আসন্ন ; দরজায় মৃদু নক; নিজের অজান্তেই লুকিয়ে যেয়ে দরজা খুলে ধরল খোদা বক্স - সামনে দাড়িয়ে  আছে অপরুপা সেই সুসানা; বলল , আমি তোমার জন্য স্টিম রুমের পাশে অপ্পেখা করব রাত ১০ টার  পর; যাও নিচে গিয়ে বেসমেন্টে ম্যাসেজ করিয়ে নেউ না কেন? এখানকার ম্যাসেজ বিশ্বের অন্যতম ম্যাসেজ পার্লার ;

কাপড়ের অভাব সম্বলিত একজন তুউনিসিয়ান মহিলা  ম্যাসেজ করার নাম  এ কখন যে ওর বাহুতে একটা মসুর ডালের মত মাইক্রো চিপ ঢুকিয়ে দিল ওরই অজান্তে ; হাতের বাইসেপে ছোট একটা ফোড়া জাতীয় গর্তের মধ্যে চিপস টা  ঢুকিয়ে তার উপর স্কিন গ্রাফট স্প্রে করে দিল আর বুঝার কোনো উপায়ই রইলো না কারো;

ইসলামিক রেডিকেল দের সাথে অনেক দিন যাবত উঠাবসা খোদা বক্সের ; গোপনে সে , ওই সব দোল গুলোকে রাশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে অস্ত্র এবং গলা বারুদ সরবরাহ করছে সৌদি এক রাজ  পুত্রের দক্ষিন হস্ত হিসাবে, তখন থেকেই এম আই  ফাইভ এবং মোসাদের রাডারে ধরা পরে দুর্ধর্ষ এই অমানুষ নামের কলঙ্ক - নরপিশাচ খোদা বক্স খান ;

অনেক দিন অনেক কাঠ ড়ি পুড়িয়েও হাতের নাগালে পাওয়া যাচ্ছিল না এর; ই ফিট নিয়ে হাজির একদিন লন্ডনের ফরেস্ট হিলের বাসায় এক মহিলা দেখা করতে চায় - ক্লান্ত, নির্বিকার গো বেচারা ওসমান  খালিদের সাথে - ওসমান  ধরি মাছ না ছুই পানি এই সেই করে বিদায় করে দিল অতিথিকে ; ওসমান টেক্সট করে জানালো এই কাজের তার দাম এক মিলিয়ন পাউন্ড - ফি আনাগোনা ফটি পার্সেন্ট অগ্রিম ই বাকি কাজ  শেষ হলে।  ওসমান এর কাজ শুধু খোদা বক্সের সাথে মিটিং ব্যবস্থা করানো এবং পরিচয় করিয়ে দেয়া; এবং তার নেক্সট উদ্দেশ কি? কেন সে আজ বেশ কয়েক মাস যাবত লিবিয়ার বাঙালি পাড়ায় আনাগোনা করচ্ছে? কেন সে হঠাথ করে বাঙালিদের বিষয়ে এত উদ্গ্রীব - কেন সে বাংলাদেশের ম্যাপ  ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে পরছে, দেখছে এবং লেখালেখি করছে? সে তিন বার লিবিয়ায় ব্রিটিশ এম্বাসীতে টুরিস্ট ভিসার জন্য দাড়িয়েছে কেন ?????

13 June 2015


Surprisingly a lot of new breed of Pakistani people are befriending us Bengalis are trying to somehow give a very different account of 1971. 
We must never forgive those bustards of Pakistani army what they did to us in 1971.
Please don't fall for their side of the story.
Those of who are very fond of those Pakistanis you can unfriend me from your list of friends.
I don't need to be associated with the who are in love with the Pakistan story.
If Pakistan is bastion of religion of islam then I am ready to denounce that too. If need be. It did not save my life being a Muslim at the time.
They are trying a new story ; it was India who divided Pakistan and Pakistan army Had done nothing. We Bengalis went to India to seek their help ; what a load of crap.... Many of our new generations are falling for it...
No Bengali should ever forgive the Pakistanis. Some of them infiltrating in the name of Muslim ummah campaign for Muslims around the 
world: be careful too. 

We must start a campaign to make them "APOLOGISE" the whole nation of Pakistan an unconditional apology ...

6 June 2015



Introduction ;  

Unity is strength is it has been said since the human civilisations all over the world started to flourish. In this modern 21st century world the dynamics of running a counter's business and governance has changed immensely. The goal post of peoples' lives have shifted and a new breed of population is emerging all over the world.  The countries all over the world are forming cooperation, federation,economic alliances and unification's in terms of strengthening their foot hold to emancipate or modify their need to move ahead to forge a better tomorrow of aspiration and hope and less of disparity and ensure strong social safety net for it's population. It has been observed that, the unions of countries have flourished better than that of the  stand alone one's and an union of nations and nation states have eradicated many vices and feuds for good. It resonates a band of common interest and opens doors for innovation, cooperation, trade and commerce and employments. without having to surrender sovereignty and independence ; rather it reduces the chances of wars, skirmishes & cross border incursion - smuggling and human trafficking to a greater extend.

This is the age of cooperation - cohesion and emancipation ; no one ought to dwell in the age old dogmatic perceptions of cynicism and  segregation - The idea of this paper is to analyse and study further the prospect of creating fruitful synergy in between the 4 countries to form a union like the European Union for their best possible sustainable and cooperative co existence to emancipate the people across the board.


Facts & Figures 

Proposed Union would be facts and figures 

   Country                              Area                    Population                 GDP

1. Bangladesh                 56, 977 sq m              156.5 mil                    533.7 billion USD

2.  Bhutan                     14,824 sq m                733,947 mil                4.2 billion USD

3.  Nepal                       56,827 sq m              26,494 mil                 62.3 billion USD

4.  India                      3.2 milion Sq m           1.2 billion                 8.9 Trillion USD

                              3.3 milion sq m             1. 3 billion               10.00 Trillion USD

Comparison  with EU

Population                                                507 million 

Area                                                        1,669,808 sq m

GDP                                                        19 Trillion USD

Comparison with USA 

Population                                              321 million 

Area                                                       3,794,100 sq m

GDP                                                       17 Trillion USD 

to be continued .....

1 June 2015


There are more to it ; watch the names of the rivers - 98.5% of them are named according to the Hindu mythological names; hence; rivers to them is not only a source of water and to build civilisation astride it there are huge RELIGIOUS implication in them too. give Bangladesh half the chance they will change the names of all these rivers to some what Arabic- Greek- Egyptian names to suit their invasion. The ultra radicalised Hindu India want theirr those sacred rivers to serve them only and if need be change the hydrograpic course and make their courses change and let these rivers form their own delta to converge into the sea in bay of Bengal via URRISHA - WEST BENGAL (NOT BANGLADESH SIDE) - ATTACH THE NEW COURSE with the caveri river so that these rivers can remain as scared as they were once named when these rivers whole course FLOWED OVER predominantly HINDU inhabitants; remember how Yazid and Imam Hussain fracas in Islam took place in karbala with a unitary water sharing issues - it is something same; and another point is - I don't think we value rivers and its waters - we have used rivers for drainage and sewage purposes - we never clean them- no community aspiration to clean their own stretch of water and when there is water use these banks of the river to make toilers and river is the drainage - and when these river bed dries up - grab the land and make it ur own land - but when India does anything we shout- would Bangladesh had not done the same thing ? block the rivers ? like we did in KAPTAI - made a dam and ruined lives for millions of hill people - it does not now produce much electricity - why don't we raise our voice to break the dam and make rangamati back to its old place and millions of acres of land will come to help for producing crop and the insurgency problem will go straight away. THINK RATIONAL AND THINK SELFLESS


Youth full in it's spring ; since the age of 11 during the war of liberation it had been a dream of mine to follow the military life style for some unknown reasons; his baritone voice and his pronouncement of the start of the Armed Struggle ( the war ) had always reverated in my minds ear since then. then came the revolt of 4 east bengal in B.Baria and the sudden arrival of a man taller than any heights and a towering inferno the calm - quiet - a cigarette stuck in between his calm - emotionless lips a giant of man major khaled mussharraf - in the most uncertain of times in march '71 his convoy arriving in B.Baria - threw a life line and then on wards the whole of B.baria rallied around welcoming the Baby tigers ( it was named like this then or we were not to know) . I then and there decided in my unconscious mind that when I grow up one day I will join The East Bengal Regiment; 
Meanwhile a lot of water has rolled down the flood plains of Bangladesh - adolescent munna turned a young man and exhilarating with fun- joy-youthfullness and a contagious sense of humour who found a slice of laughter in everything in life.
Month of may 1981 - inching close one step by step towards the gate of entrance to the Bangladesh Military Academy ; April 17- 18th medical was over and call up notice arrived for ISSB ( an over exaggerated myth) from the 03rd June 81. Those were the few knuckle clinching days for me in my life. I was never serious in my life and as usual was not serious in this occasion too. 
Nasim Hussain & I were sitting together and trying to emulate how we will be doing the assault course - group task and above the the Intelligent Quotient test; reeling with sorrow for one our 3rd buddy not getting through the gruelling medical taste in comilla and staying in that nice penthouse of the hotel in comilla opposite the famous comilla race course. Faruk Siddique 's absence in our group discussion was felt badly; 
There he comes one fine morning from chittagong ; just joined the University of Chittagong in a newly opened department of Marine Biology my great friend Sarwar Khan to visit his aunt in sylhet, As soon as he comes all concentration of preparing for the forthcoming ISSB goes out of the window. 
On that fateful day of the 31st of May at about 09:00 i took a rickshaw and came to tatipara just opposite the gate of my ex school and picked up Sarwar Khan and lost in the mist of our deep convesation whilst the rickshaw was heading towards baloochor it was a typical misty morning of may an early monsoon drizzles were soaking us both through the stinky and smelly polithine burkha of the rickshaw but nothing could dampen our converation- sarwar has always been a dark horse - en elusive chupa - houa - rustom and my inquisitive mind and police detective type questioning was like extracting some juice out of the jaflongs boulders & pebbles.
After a long uphill struggle of the poor rickshaw puller up the hill from the TB hospital towards the MC college hostel with headwind nearly stopping the rickshaw - we finally arrived at the grand bamboo made gates of the Syed's residence of Syed Ehsan rquickly ushered inside the house and by the time we arrived the drizzle turned into a heavy rainfall and we both were soaked to bone.
Once inside at the company of great mr ehsan - we three friends just closed off from the rest of the world - i was supposed to leave for dhaka for the ISSB and sarwar going to go back to Uni. there was a great urgency of lot of catching up to do - breakfast - smoke littered room looked foggy in a broad day light - closed were all windows and doors and lunch arrived specially prepared by ehsan's chatto apa khala. nice kitchuri and some fish ohh was out of this world.... doing all of these little did we know that in the meanwhile when the clock has turned six o clock and we thought time to go home - ehsan and there was some one else with us joined us on the road to come unto the main road to fetch a rickshaw - and found all the shops - the road side dhabas and the tea stalls are closed - the whole road was empty - no rickshaw - no baby - no pedestrian - it looked like a ghost town very reminiscent like a abandoned township in an western movie - the yellow building opposite the Mc college hostel - beside the road junction looked like a ghost sanctuary and then there comes a convoy of Army - BDR lorries with LMG's pointing toward the public and helmet tucked heads with poping eyes of the soldiers were measuring our height - weight and width like a prey. As is we are a bunch of criminals - shocked , dumbfounded and a little confused - those were the days when no one of my age 21 year ever listened to the radio or switched on the TV early in the morning at nine of clock to find out about the world and it's news - as it is Bangladesh in 1981 was dwelling in a very primitive age - colour TV was opened I think a few months ago. 
In the state of shock and confusion we find a elderly man walling towards us from the Gymnasium building and we asked him '' salam u alaiqum. chacha - what has happened ? why the place is so quiet and why no one on the street and these line of 5 thriving shops with people playing keram board- all day long till the late evening all so quiet like the western front ? 
The old and frail gentleman - scoldingly said '' you foolish chaps which world do you guys live ? 
don't you know Our President Zia ur Rahman is killed in a coup d'e'tat in Chittagong last night?
what? !!!! 
oh no !! what a shame !! He was my hero - his baritone voice and his staunch pronouncement on the radio on the 26th march 71 gave the nation a sense of encouragement to my little understanding at that age and he fought so bravely and he was a living legend and who has inspired me to join the army to follow his footstep is no more !!
My impetus of ambitions and dream of meeting him and shaking hands with as an officer ( of the same stature in different slab may be) was shattered like a broken glass. where in the broken mirror of ambitions glass canvas his face was flashing time and time again - A hero i adored - a soldier of mountainous courage - a leader of himalayas altitude who inspired his under command to follow him to the unknown and embrace martyrdom - breaking the rank and file formation knowing the consequences and how the troops and officers rallied around him to upheld the glory of the motherland on the most precarious of time and at the most crucial of juncture to my little knowledge and understanding He remains an epitome of a hero and an idol to follow - I am apolitical and can not understand the political dynamics of it at all nor i did then or in 71 neither i understand it now.
Why ? No where but our country these national icons and leaders and military leader and civilian leader(s) - even the man who showed us the dream of an independent county also has to pay his debt by giving life ; why are we so impatient? why all solution of all problem as if lies in killing ; why are we so trigger thirsty ? 
One by one all the flowers of the tree of our liberation war; started to fall down from grace in unexplained circumstances. Irony of a nation who never could try and evaluate those flowers towering contribution nor appreciate their resilience toward presenting us with a country which we call fondly 

Featured post

'' পাহাড়ে কয়েক টা দিন ''

'' পাহাড়ে কয়েক টা দিন '' এ প্রিল ১৯৭৯ রাঙামাটি রিজার্ভ বাজারের লন্চ ঘাটে গফুর হাজীর লঞ্চে উঠলাম : নিজাম ; লন্চ মাল...